ড. হালিমা খাতুন-এর মরদেহে ঢাবি উপাচার্যের শ্রদ্ধা নিবেদন

ড. হালিমা খাতুন-এর মরদেহে ঢাবি উপাচার্যের শ্রদ্ধা নিবেদন

14
0
SHARE

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রী, শিক্ষক এবং বিশিষ্ট ভাষা সৈনিক ড. হালিমা খাতুনের মরদেহ আজ ৪ জুলাই ২০১৮ বুধবার সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদনের উদ্দেশ্যে আনা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের পক্ষ থেকে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান রক্ষিত মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমাদ ও প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ উপস্থিত ছিলেন।

গতকাল ৩রা জুলাই ২০১৮ প্রদত্ত এক শোকবাণীতে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ড. হালিমা খাতুন বিশ্ববিদ্যালয়ের শুধু একজন নিবেদিতপ্রাণ শিক্ষকই ছিলেন না, তিনি ছিলেন একজন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও কথাসাহিত্যিক। বাংলা মাতৃভাষা আন্দোলনের সংগ্রামে সক্রিয়ভাবে তিনি অংশগ্রহণ করেন। ১৯৫২ সালের ২১ শে ফেব্রæয়ারি ঢাকা মেডিকেল কলেজ চত্বরের আমতলায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে ছাত্রীদের সংগঠিত করার ক্ষেত্রে তিনি বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রেই শুধু নয়, শিক্ষার্থীদের জন্য পাঠ্য-পুস্তক রচনা করে মাতৃভাষায় শিক্ষা অর্জনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন তিনি। বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থার অগ্রগতি এবং সাংস্কৃতিক বিকাশে তাঁর অদানের জন্য তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারসহ সমগ্র দেশবাসীর কাছে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন।

উপাচার্য মরহুমার রুহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং তাঁর পরিবারের শোক-সন্তপ্ত সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

উল্লেখ্য, ভাষাসৈনিক হালিমা খাতুন রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল ৩ জুলাই ২০১৮ দুপুরে ইন্তেকাল করেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। আজ বাদ জোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মসজিদুল জামিয়া’য় তাঁর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY