ঢাবি-এ ‘সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে আবহাওয়াবিজ্ঞানের অগ্রগতি’ শীর্ষক সেমিনার

ঢাবি-এ ‘সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে আবহাওয়াবিজ্ঞানের অগ্রগতি’ শীর্ষক সেমিনার

123
0
SHARE

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আবহাওয়া বিজ্ঞান বিভাগের উদ্যোগে ‘সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে আবহাওয়াবিজ্ঞানের অগ্রগতি’ শীর্ষক দিনব্যাপী সেমিনার গতকাল ১৫ জানুয়ারি ২০১৮ সোমবার রফিকুল ইসলাম খান মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. তৌহিদা রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমাদ, আর্থ এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল এবং বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিশিষ্ট আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ড. আব্দুল কাদির।
উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান তাঁর বক্তব্যে বলেন, আবহাওয়াবিজ্ঞান শুধু তত্ত¡ীয় শিক্ষা নয়, এটি ব্যবহারিক এবং প্রযুক্তি ও গবেষণা নির্ভর একটি শিক্ষা। একটি দেশ যখন উন্নয়নের দিকে অগ্রসর হয়, তখন কতকগুলো ক্ষেত্র চিহ্নিত করে সে বিষয়ে পরিকল্পনা করতে হয় এবং আবহাওয়া তাদের মধ্যে অন্যতম। আবহাওয়ার পূর্বাভাস শুধু উপকূলীয় মানুষের জন্য নয়, আজ সেটি আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের অংশ হয়ে পড়েছে। মানুষের সামাজিক সংস্কৃতির অংশ হিসেবেও আবহাওয়ার গুরুত্ব অপরিসীম। আজকের এই সেমিনারে আবহাওয়া অধিদপ্তরসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে সম্পৃক্ত করায় বিভাগীয় আয়োজকদের উপাচার্য ধন্যবাদ জানান।
সেমিনারে বিমান বাহিনী ও আবহাওয়া অধিদপ্তরের গবেষক ও কর্মকর্তা ছাড়াও দেশি বিদেশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিবর্গ অংশগ্রহণ করেন। আলোচকরা আবহাওয়াবিজ্ঞানের পূর্বের ও বর্তমান অবস্থা পর্যালোচনাসহ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে আবহাওয়াবিজ্ঞানের অবদান সম্পর্কে তাদের গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য উপস্থাপন করেন। আবহাওয়া সম্পর্কিত নানাবিধ সেবা যেমন কৃষি, মৎস্য এবং খাদ্য নিরাপত্তা, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, স্বাস্থ্য, নদী ও সমুদ্রে দিকনির্ণয়সহ আরও বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয় যার ফলে মানুষ সঠিক সময়ে দুর্যোগের পূর্বাভাস পায় ও এতে সম্পদের ক্ষতিসাধন হ্রাস পায়। সঠিক ও দীর্ঘ পরিসীমার আবহাওয়া পূর্বাভাস প্রদানের জন্য বাংলাদেশে দক্ষ মানব সম্পদের যেমন সংকট রয়েছে তেমনি রয়েছে সরঞ্জাম ও প্রযুক্তিগত সীমাবদ্ধতা।
উল্লেখ্য, আবহাওয়াবিজ্ঞান বিভাগের উপযোগিতা বিবেচনা করেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে গত ২০১৬ সালের ৩১মার্চ ‘আবহাওয়া বিজ্ঞান’ বিভাগ চালু করা হয়।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY