বর্ণাঢ্য আয়োজনে ঢাবি দর্শন বিভাগের পুনর্মিলনী

বর্ণাঢ্য আয়োজনে ঢাবি দর্শন বিভাগের পুনর্মিলনী

129
0
SHARE

“সৌহার্দ্য ও স্মৃতির বন্ধনে আবদ্ধ আমরা, এসো মিলি  প্রাণের আনন্দে” প্রতিপাদ্য নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দর্শন বিভাগ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের (ডুপডা)-এর দশম পুনর্মিলনী উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান গতকাল ৫ জানুয়ারি ২০১৮ শুক্রবার ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়েছে। পুনর্মিলনীর উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। দর্শন বিভাগের চেয়ারম্যান ও ডুপডার সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. সাজাহান মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এমিরিটাস অধ্যাপক ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এ কে আজাদ।

উদ্বোধনী বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, দর্শন বিভাগ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ১২টি বিভাগের একটি। ঐতিহ্যবাহী এ বিভাগ তিন বছর পরে শতবর্ষ পূর্ণ করবে। একটি একীভূত সমাজ গঠনে দর্শন বিভাগের অ্যালামনাইদের এগিয়ে আসতে হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, বর্তমান পৃথিবী ভয়ঙ্কর বিপদে রয়েছে। মানুষ তার মনুষ্যত্ব হারিয়ে ফেলছে। পুঁজিবাদ নামক রোগ পৃথিবীর অগ্রগতি ও সৃষ্টিশীলতাকে আটকে রেখেছে। এ রোগ নিরূপণ করতে পারে ‘দর্শন’। বিশ্বের সুচিকিৎসার জন্য প্রয়োজন দর্শন। তিনি আরও বলেন, ভার্চুয়াল পৃথিবী সত্যিকারের পৃথিবীকে ভুলিয়ে দিচ্ছে। ফেসবুকের মতো যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেকে তুলে ধরে আত্মপ্রসাদ অনুভব করলেও এর মধ্য দিয়ে আসলে মানুষ প্রত্যক্ষ যোগাযোগ থেকে বিচ্ছিন্ন হচ্ছে। সত্যিকারের পুনর্মিলনীর মাধ্যমে স্মৃতি ও সম্প্রীতির প্রকৃত মেলবন্ধন করতে হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম, ডুপডার সাধারণ সম্পাদক আবদুস সাত্তার মিয়াজী, পুনর্মিলনী উদ্যাপন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. এ কে এম হারুনার রশিদ প্রমুখ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ‘প্রাণপ্রবাহ’ শীর্ষক স্মরণিকা’র মোড়ক উন্মোচন করা হয়। এছাড়া, ছয়জন জ্যেষ্ঠ অ্যালামনাইকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। সম্মাননাপ্রাপ্তরা হলেন- জ্যোতিন্দ্র লাল ত্রিপুরা, অধ্যাপক গালিব আহসান খান, অধ্যাপক লতিফা বেগম, অধ্যাপক রাশেদা আক্তার খানম, অধ্যাপক ফেরদৌসি বেগম ও অধ্যাপক মাহবুবুর হরমান। মধ্যাহ্নভোজের পর এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আকর্ষণীয় র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হয়।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY