ঢাবি’তে শহীদদের স্মরণে নির্মিত স্মৃতিফলক ও কলাভবন চত্বরের সৌন্দর্যবর্ধন উদ্বোধন

ঢাবি’তে শহীদদের স্মরণে নির্মিত স্মৃতিফলক ও কলাভবন চত্বরের সৌন্দর্যবর্ধন উদ্বোধন

27
0
SHARE

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন, বটতলা, অপরাজেয় বাংলাসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার সৌন্দর্যবর্ধন ও সংস্কার কাজ এবং একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্মরণে নবনির্মিত স্মৃতিফলক উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। গতকাল ২৮ নভেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার বিকেলে কলাভবন চত্বরে এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন এসিআই লিমিটেডের চেয়ারম্যান এম. আনিস উদ দ্দৌলা ও বিশ্ববিদ্যালয় বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম। কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক আবু মো. দেলোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড. মো. শাহজাহান মিয়া। এসময় এম আনিস উদ দ্দৌলার পরিবারের সদস্যসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের শিক্ষকবৃন্দ ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান এসিআই লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও তাঁর পরিবারের প্রতি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন. ঐতিহাসিক কাজের সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার প্রচেষ্টায় তার ব্যতিক্রমী মূল্যবোধের প্রমাণ পাওয়া যায়। বাঙালি জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বাস্তবায়নে এ প্রচেষ্টা আমাদের অণুপ্রাণিত করবে। মহান ভাষা আন্দোলনে অংশগ্রহনকারী এম আনিস উদ দ্দৌলার এই প্রচেষ্টাকে ‘অদৃশ্য প্রভাব’ বলে উল্লেখ করেন তিনি।  ঐতিহাসিক এই প্রাঙ্গণের সৌন্দর্য বর্ধন ও শহীদদের স্মরণে যে স্মৃতিফলক করা হয়েছে তার প্রভাব শিক্ষার্থীদের মধ্যে পড়বে এবং সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য সুন্দর পরিবেশ শিক্ষার্থীদের ভাল মনন তৈরিতেও সাহায্য করবে বলে উপাচার্য আশা প্রকাশ করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্বাধীনতা সংগ্রামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূমিকা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে এম. আনিস উদ দ্দৌলা বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সদস্যরা যেভাবে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছেন এবং যে ত্যাগ স্বীকার করেছেন তাতে বাঙ্গালী জাতি তাদের কাছে চিরকৃতজ্ঞ। তাদের এই ত্যাগের অপরিসীম মহিমাকে চিরস্বরণীয় করে রাখতে এই স্মৃতিফলকের প্রতিষ্ঠা।

উল্লেখ্য, ঐতিহ্যবাহী কলাভবন চত্বরের বিভিন্ন স্থাপনা সংস্কার অত্যাবশ্যকীয় হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তা সংস্কারের উদ্যোগ নেয়। শহীদদের স্মৃতিফলক নির্মাণ, ফোয়ারা ও অন্যান্য স্থাপনার সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য অনুদান প্রদান করে এসিআই লিমিটেড কর্তৃপক্ষ।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY