ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপিত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপিত

27
0
SHARE

বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে গত ১৭ মার্চ ২০১৭ শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপিত হয়েছে। দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহণ করে। কর্মসূচীর মধ্যে ছিল – বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পন, আলোচনা সভা, শিশু চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, সঙ্গীতানুষ্ঠান প্রভৃতি।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সদস্যগণ সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পু®পস্তবক অর্পন করেন। পরে উপাচার্যের সভাপতিত্বে ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মো: আখতারুজ্জামান,  কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো: কামাল উদ্দীন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো: রহমত উল্লাহ, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মফিজুর রহমান, অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি সৈয়দ আলী আকবর, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা বঙ্গবন্ধু সমাজকল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো: ইমাম হোসেন শেখসহ কর্মচারী সমিতি, কারিগরি কর্মচারী সমিতি, এবং চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ আলোচনায় অংশ নেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মো: এনামউজ্জামান আলোচনা সভা পরিচালনা করেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনাদর্শের সঙ্গে নতুন প্রজন্মকে সংযুক্ত করার উপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, শুধু বিশেষ দিনে নয়, প্রতিদিনই শিশুদের মাঝে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ তুলে ধরতে হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করতে পারলেই শিশুরা পরিপূর্ণ মানুষ হিসাবে বিকশিত হতে পারবে। উপাচার্য বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বলেন, ১৯৭৪ সালে জাতিসংঘে প্রদত্ত ভাষণে বঙ্গবন্ধু বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় অস্ত্র প্রতিযোগিতা বন্ধ এবং নিরন্ন মানুষকে অন্ন প্রদানের আহŸান জানিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে শিক্ষা নিয়ে পরিবার, সমাজ তথা বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হবে। জঙ্গিবাদমুক্ত পৃথিবী গড়ে তুলতে হবে। আত্মসমালোচনার মাধ্যমে আত্মশুদ্ধি অর্জন করতে হবে। লোভ-লালসা, হিংসা-বিদ্বেষ পরিহার করে মানুষকে ভালবাসতে হবে। আত্মবিশ্বাস ও আত্মপ্রত্যয়ে বলীয়ান হয়ে বাঙালি জাতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নে সক্ষম হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদসহ আবাসিক হল, হোস্টেল, মসজিদ ও উপাসনালয়ে দোয়া ও প্রার্থনা করা হয়।

চারুকলা অনুষদের উদ্যোগে সকালে ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের ক্যাফেটেরিয়ায় চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। মোট ৩টি গ্রæপে এই প্রতিযোগিতায় ঢাকা ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরী স্কুল ও কলেজ, উদয়ন উচ্চ বিদ্যালয়, নীলক্ষেত উচ্চ বিদ্যালয় এবং বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক এলাকার শিশুরা অংশগ্রহণ করে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY